বৃহত্তর ঐক্যের পথে সংগীতের তিন সংগঠন


বিনোদন প্রতিবেদক
সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য বেশ সোচ্চার ও সচেতন হয়ে উঠেছেন সংগীত সংশ্লিষ্টরা। গেল ৪৯ বছরেও যে ইন্ডাস্ট্রিতে গীতিকবি, কণ্ঠশিল্পী আর সুরকারদের কোনও সংগঠন তৈরি হয়নি, চলমান মহামারিতে সেটিই হয়েছে। প্রায় কাছাকাছি সময়ে আলাদাভাবে সংগঠিত হয়েছে গীতিকবি, সুরস্রষ্টা ও কণ্ঠশিল্পীরা। সৃষ্টি হয়েছে যথাক্রমে গীতিকবি সংঘ বাংলাদেশ, মিউজিক কম্পোজার্স সোসাইটি বাংলাদেশ ও সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ নামের তিনটি সংগঠন।
আশার কথা হলো, এই তিন সংগঠন মিলে এবার হতে যাচ্ছে বৃহত্তর ঐক্য। আর সেটি বাস্তবায়নের জন্য তিন সংগঠনকে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি।
রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাংলাদেশ আর্কাইভ মিলনায়তনে রেজিস্ট্রার অব কপিরাইটস দফতরের উদ্যোগে প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের সঙ্গে এই সভা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-এর আহ্বায়ক রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। গীতিকবি আসিফ ইকবালের সঞ্চালনায় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন গীতিকবি সংঘের প্রধান সমন্বয়ক শহীদ মাহমুদ জঙ্গী, মিউজিক কম্পোজার্স সোসাইটি বাংলাদেশ-এর সভাপতি নকীব খান এবং সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-এর যুগ্ম আহ্বায়ক কুমার বিশ্বজিৎ।
সভায় তিন সংগঠনের সম্মিলিত ১৫টি প্রস্তাবনা পাঠ করেন যথাক্রমে গীতিকবি সংঘের জ্যেষ্ঠ সদস্য কবির বকুল, মিউজিক কম্পোজার্স সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আহমেদ এবং সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য জয় শাহরিয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *