হাসপাতাল ছাড়লেন ট্রাম্প


বিদেশ ডেস্ক

হাসপাতাল ছাড়লেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিক্যাল সেন্টারে তিন রাত কাটানোর পর সোমবার হোয়াইট হাউজে ফেরেন তিনি। ফিরেই সাংবাদিকদের সামনে ফটোসেশনের জন্য মাস্ক খুলে ফেলেন তিনি।

এরইমধ্যে হোয়াইট হাউজে নতুন করে ট্রাম্পের একজন ব্যক্তিগত সহকারী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তার নির্বাচনি প্রচারণায়ও এর প্রভাব পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে হোয়াইট হাউজে ফিরে কেমন লাগছে? একজন সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের উত্তরে ট্রাম্প বলেন, খুবই ভালো।

হেলিকপ্টারযোগে হাসপাতাল থেকে হোয়াইট হাউজ চত্বরে ফেরেন ট্রাম্প। এ সময় তিনি মাস্ক খুলে হাত নাড়ান এবং থাম্ব আপ সাইন দেখান। পরে মাস্ক পকেটে নিয়ে হেঁটে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে প্রবেশ করেন তিনি।

পরে এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, আপনার জীবনকে নিয়ন্ত্রণের সুযোগ করোনাভাইরাসকে দেবেন না। সাবধান থাকুন। এটিকে ভয় পাবেন না। আমরা কাজে ফিরছি।

গত বৃহস্পতিবার রাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা জানা যায়। মেলানিয়ার মৃদু উপসর্গ থাকলেও হোয়াইট হাউজে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে অক্সিজেন দিতে হয়েছিল। এরপরই তাকে মেরিল্যান্ডের ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি করা হয়। কিন্তু রবিবার আচমকাই বেরিয়ে পড়েন ট্রাম্প। সমর্থকদের উদ্দেশে হাত নাড়ার পাশাপাশি নিজের গাড়িতে বেশ কিছুক্ষণ ঘোরাঘুরি করেন তিনি। প্রেসিডেন্টের এমন কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রশ্নের মুখেই পরদিন সোমবার হাসপাতাল ছাড়েন তিনি।

রাত সাড়ে ৯ টার দিকে কক্সবাজার জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘উখিয়া রোহিঙ্গা শিবিরের ডাকাত দলের দুই পক্ষের গোলাগুলিতে চারজন মারা গেছে। পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করেছে। পুলিশ ডাকাতদের ধরতে অভিযান পরিচালনা করছে।’

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন রোহিঙ্গাদের মধ্যে গোলাগুলি চলছিল। এর আগে রবিবার ৮টার দিকে আবার দ্বিতীয় দফা গোলাগুলি, অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এতে সাতটি ঘর পুড়ে গেছে এবং আহত হয়েছেন ১৫ জন রোহিঙ্গা।
তাদেরকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল ও রোহিঙ্গা শিবিরের বিভিন্ন এনজিও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *