উপনির্বাচন : ৪ আসনেই জয় চায় আওয়ামী লীগ

মহাকাল প্রতিবেদক :

ঢাকা-৫, ঢাকা-১৮, সিরাজগঞ্জ-১ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এজন্য ইতিমধ্যে দলের কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত সমন্বিত কমিটি করে মাঠে নেমেছে। আওয়ামী লীগ চায় দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী সব নেতাকে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে ঐক্যবদ্ধ করা, দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দল নিরসন করা ও সব অসঙ্গতি দূর করে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় নৌকার বিজয় নিশ্চিত করা।

সম্প্রতি নানা রোগ ও বার্ধক্যজনিত সমস্যায় একে একে আওয়ামী লীগের ৫ জন সংসদ সদস্য মারা যান। এরা হলেন, পাবনা-৪ আসনের শামসুর রহমান শরীফ, নওগাঁ-৬ আসনের ইসরাফিল আলম, ঢাকা-৫ আসনের হাবিবুর রহমান মোল্লা, ঢাকা-১৮ আসনের সাহারা খাতুন ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের মোহাম্মদ নাসিম এমপি। যথানিয়মে তাদের মৃত্যুতে শূন্য আসনগুলো নির্বাচনের আয়োজন করছে নির্বাচন কমিশন।

ইতিমধ্যে পাবনা-৪ এ নির্বাচন হয়েছে। এতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুরুজ্জামান বিশ্বাস জয় পেয়েছেন। বাকি ৪ আসনের মধ্যে ১৭ অক্টোবর নওগাঁ-৬ ও ঢাকা-৫ আসনের ভোটগ্রহণ। ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনে ভোটগ্রহণ ১২ নভেম্বর।

দলীয় প্রস্তুতি হিসেবে ইতিমধ্যে এসব আসনে নিজেদের প্রার্থীতাও ঘোষণা করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন দল। আওয়ামী লীগ নওগাঁ-৬ আসনে আনোয়ার হোসেন হেলাল, ঢাকা-৫ এ কাজী মনিরুল ইসলাম মনু, ঢাকা-১৮ আসনে হাবিব হাসান ও সিরাজগঞ্জে তানভীর শাকিল জয়কে প্রার্থী করেছে।

দলের প্রার্থীর পক্ষে অন্যান্য মনোনয়নপ্রত্যাশী, দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ঐক্যবদ্ধ করে নির্বাচন করার জন্য বেশ প্রস্তুতিও গ্রহণ করেছে আওয়ামী লীগ। ইতিমধ্যে ৪ আসনে কেন্দ্রীয় নেতাদের দেখভাল ও সমন্বয়ের দায়িত্ব দিয়ে মাঠে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। জানা গেছে, ঢাকা-৫ আসনে আওয়ামী লীগের নির্বাচন দেখভালের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানককে।

সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এ আসনের নির্বাচনী সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করবেন। পাবনায় প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুর রহমান ও নওগাঁয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম দেখভাল করবেন। এই দুই আসনে সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন সমন্বয় করবেন। ঢাকা-১৮ আসনে শিশগিরই কেন্দ্রীয় দেখভাল ও সমন্বয়ের জন্য নেতা মনোনীত করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

গত কয়েকদিনে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা যার যার দায়িত্বপ্রাপ্ত সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের সব নেতার সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে মাঠে নামানোর কাজ করছেন। সবার টার্গেট নৌকার বিজয়।

এ বিষয়ে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা-৫ আসনের দেখভালের দায়িত্বে নিয়োজিত জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, আমাদের প্রথম কাজ হলো- দলের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে একটা সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানের পথ প্রশস্ত করা। ইতিমধ্যে স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছি। কেন্দ্রীয় নেতাদের সমন্বয়ে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে নির্বাচনী টিম করে দিয়েছি। তারা প্রতিটি ওয়ার্ডে সাধারণ জনগণের কাছে সরকারের নানা উন্নয়ন তুলে ধরবেন। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকার পক্ষে ভোট জনসমর্থন চাইবেন। আশা করছি, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে পারব।’

জয়ের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, ‘এই চারটি আসনের যেসব সংসদ সদস্য মৃত্যুবরণ করেছেন, তারা অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিলেন। তারা ওইসব আসন থেকে বার বার জয়লাভ করে আসছিলেন। তাদের অবর্তমানে আমরা বেশ গ্রহণযোগ্য ও জনপ্রিয় প্রার্থী দিয়েছি। এজন্য আশা করি, সেসব আসনে আওয়ামী লীগের জয়ের ধারা অব্যাহত থাকবে। আমাদের প্রার্থীরা জয়লাভ করবে।’

তবে এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বৃহস্পতিবার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে বলেছেন, ‘জনগণ যে রায় দেবে, তা আমরা মেনে নেব।’ এসময় তিনি বিএনপিকে শেষ পর্যন্ত ভোটের মাঠে থাকার আহ্বান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *