বিগ ব্যাশে খেলবেন না স্মিথ


ক্রীড়া ডেস্ক :

করোনার কারণে জৈব-সুরক্ষা বলয়ে আবদ্ধ থাকতে-থাকতে ক্লান্ত, সদ্যই এমন মন্তব্য করেন ইংল্যান্ডের পেসার জোফরা আর্চার। আর এই জৈব-সুরক্ষা বলয়ের কড়াকড়ি নিয়মের কারণেই নিজ দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টুয়েন্টি লিগ বিগ ব্যাশ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। বিগ ব্যাশের আগামী আসরে না খেলার সিদ্বান্ত স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন স্মিথ।

চলতি বছরের আগস্টে ইংল্যান্ড সফরে যায় অস্ট্রেলিয়া। ঐ সফর থেকেই জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে আছেন স্মিথ। ইংল্যান্ড সফরের পর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ত্রয়োদশ আসরে খেলতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে যান তিনি। আইপিএলের আসরেও জৈব-সুরক্ষা বলয়ে মধ্যে থাকতে হচ্ছে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে খেলা স্মিথকে।

আগামী মাস থেকে ভারতের বিপক্ষে দেশের মাটিতে সিরিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়া। সেখানেও জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থাকতে হবে স্মিথকে। বিগ ব্যাশ খেলতে গেলেও একই পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে তাকে। তাই পরিবার থেকে দীর্ঘদিন দূরে থাকতে হবে বলে বিগ ব্যাশে না খেলার কথা জানান স্মিথ, ‘সত্যি করে যদি বলি, আসলে বিগ ব্যাশে খেলার কোন সুযোগ নেই। জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই ক্রিকেট খেলতে হচ্ছে। আমরা জানি না কবে এই পরিস্থিতির শেষ হবে। এটা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। দীর্ঘদিন একই অবস্থা থাকাটা কঠিন হয়ে পড়ছে।’

জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থাকাটা অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং বলে মনে করেন স্মিথ, ‘দল নির্বাচনসহ যেকোনো বিষয় এখন চ্যালেঞ্জের। কেউ যদি টানা জৈব-সুরক্ষা বলয়ে থাকার পর ছুটি নেয় এবং তার জায়গায় আসা অন্য কেউ ভালো করে ফেলে, তখন ছুটি শেষে ফেরা ক্রিকেটারের কি হবে? আবার সুযোগ পেয়ে ভালো করা খেলোয়াড়কে নিয়ে কি সিদ্ধান্ত হবে? তাই জৈব-সুরক্ষা বলয়ের থাকাটা সকলের জন্যই অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং।’

স্মিথের মত জৈব-সুরক্ষা বলয়ের কারনে বিগ ব্যাশ থেকে নিজেদের সরিয়ে নিতে পারেন অস্ট্রেলিয়ার আরও দুই ক্রিকেটার- ডেভিড ওয়ার্নার এবং প্যাট কামিন্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *