সবার পাঠ্যবই যথাসময়ে, প্রাক-প্রাথমিক শুরু মার্চে

মহাকাল প্রতিবেদক :

করোনা ভাইরাসের কারণে কবে থেকে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু করা যাবে তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। তবে শিক্ষাবর্ষ শুরু করার জন্য পাঠ্যবই ও প্রয়োজনীয় অন্য শিক্ষা উপকরণ প্রস্তুতির কাজ পুরোদমে চলছে। প্রথম থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা যথাসময়েই সব বই হাতে পাবে। তবে নতুন শিক্ষাক্রমের ২ বছর মেয়াদী প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাকার্যক্রম মার্চ মাস থেকে শুরু হতে পারে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র সাহা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২০২১ শিক্ষাবর্ষের বই শিক্ষার্থীরা কবে নাগাদ হাতে পাবে এমন প্রশ্নের জবাবে প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, ‘আমাদের যা কাজ সেটা আমরা শেষ করছি। বই ছাপা ও বাঁধাইয়ের কাজ চলছে। ডিসেম্বর মাস শেষ হবার আগেই সব স্কুলে বই পৌঁছে যাবে। আগের বছরের মতো এবারও জানুয়ারির প্রথম দিনেই আমরা শিক্ষার্থীদের হাতে সব বই পৌঁছে দিতে পারব। সেভাবেই কাজ চলছে।’

এনসিটিবি চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘প্রাক-প্রাথমিকে যেহেতু খুব ছোট শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়, তাই তাদের শিক্ষাকার্যক্রম কিছুটা দেরিতে শুরু করা হয়। সাধারণত শীত কমলে, মার্চ মাস থেকে তাদের নিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়। এবারও তেমনটি হবে। এই কার্যক্রম শুরু করার জন্য যেসব উপকরণ দরকার সেগুলোও নির্ধারিত সময়ের আগেই স্কুলে পৌঁছে যাবে।’

মহামারির মাঝে বই কিভাবে বিতরণ করা হবে তা জানতে চাইলে এনসিটিবি চেয়ারম্যান বলেন, ‘এটা শিক্ষামন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেবে। আমরা নতুন বই পৌঁছে দেব। এরপর বিতরণ কবে, কিভাবে হবে সে সিদ্ধান্ত মন্ত্রণালয়ের।’

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাস মহামারির প্রকোপ রোধে অন্যান্য বছরের মতো চলতি বছর বই উৎসব করার পরিকল্পনা নেই শিক্ষামন্ত্রণালয়ের। এ ব্যাপারে ২৯ অক্টোবর এক ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘চলতি বছর আমরা হয়ত বই উৎসব করতে পারব না। তবে সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে যথাসময়ে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছে দিয়ে, নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু করার।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *