এক বৌ নিয়ে দুই স্বামীর টানাটানি


নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :

এক বধূকে নিয়ে দুই যুবকের টানাটানি। দুজনেরই দাবি, তারা ওই বধূর স্বামী। এতে বাকবিতণ্ডা মুহূর্তেই রূপ নেয় সংঘর্ষে।

এ ঘটনায় বধূসহ দুই যুবককে পাঠানো হয় নারায়ণগঞ্জ সদর থানায়।

বৃহস্পতিবার বিকালে চাষাড়ার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এভাবেই ওই মেয়েকে পেয়ে টানা-হেঁচড়া শুরু করেন দুই যুবক।

ওই নারীর নাম সুরভী। তিনি কেরানীগঞ্জের বাসিন্দা রজ্জব আলীর মেয়ে।

আর প্রথম স্বামী দাবি করা আকাশ আহমেদ রাজধানীর কামরাঙ্গীচরের বাসিন্দা ফারুক আহমেদের ছেলে। দ্বিতীয় স্বামী দাবি করা মেহেদী হাসান নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা।

আকাশ আহমেদ বলেন, দুই বছর আগে সুরভী আক্তারের বিয়ে হয় তার সঙ্গে। কোলে থাকা ৬ মাসের শিশু আল-আমিন তার সন্তান। কিছুদিন পূর্বে আমার ছেলেকে নিয়ে সুরভী পালিয়ে গিয়েছিল। তার অবস্থান শনাক্ত করতে পেরে সুরভীর বাবা-মাকে নিয়ে ধরতে এসেছি।

এদিকে মেহেদী হাসানে বলেন, ওর সঙ্গে আমার ফেসবুকে পরিচয়। এক মাস আগে আমাদের বিয়ে হয়েছে। বিয়ের সময় আমাকে বলেছিল ওর ডিভোর্স হয়েছে। আজকে ওর আগের সংসারের লোকজন বাচ্চাকে দেখতে এসেছে। কিন্তু এখন ওই সংসারের লোকজন বলছে যে তাদের নাকি ডিভোর্স হয় নাই। তারা আমার স্ত্রীকে নিয়ে যাবে।

তবে আকাশ আহমেদকে অস্বীকার করে সুরভী আক্তার বলেন, আকাশ আমার স্বামী না। আমি ওর সঙ্গে যাব না। আমি মেহেদীর সঙ্গে থাকতে চাই। আমি ফেরত যেতে চাই না। এসময় আকাশ বিভিন্ন সময় মারধর করতো বলেও অভিযোগ করেন সুরভী।

এ ব্যাপার নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার আসাদুজ্জামান বলেন, আমরা তিনজনকেই আটক করে রেখেছি। তদন্ত হচ্ছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *