বিশ্ব নেতাদের শুভেচ্ছায় সিক্ত বাইডেন


মহাকাল ডেস্ক :

যুক্তরাষ্ট্রের ঐতিহ্যগত পশ্চিমা মিত্র দেশগুলোর নেতারা ক্ষমতায় বসতে যাওয়া জোসেফ রবিনেট বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এক বিবৃতিতে বলেন, যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মিত্র যুক্তরাষ্ট্র।

একইসঙ্গে তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন থেকে শুরু করে বাণিজ্য ও নিরাপত্তার মতো অভিন্ন অগ্রাধিকারের বিষয়গুলো নিয়ে নিবিড়ভাবে একসাথে কাজ করতে তিনি অপেক্ষায় আছেন।

বরিস জনসন প্রথম নারী, প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নারী ও প্রথম দক্ষিণ এশিয়ান বংশোদ্ভূত হিসেবে ঐতিহাসিক অর্জনের জন্য ভাইস-প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত কমলা দেবী হ্যারিসকেও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁ টুইট করেন, আজকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমাদের অনেক কিছু করতে হবে। চলুন একসাথে কাজ করি।

কানাডিয়ান প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, বিশ্বের বড় চ্যালেঞ্জগুলো রোধে একসাঙ্গে কাজ করতে তিনি আগ্রহ নিয়ে বসে আছেন।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেন, নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা দেবী হ্যারিসকে অভিনন্দন জানানোর চেয়ে তার কাছে আর কিছু অধিক গর্বের নেই।

তিনি বলেন, বাইডেন এমন কিছু বিস্ময়কর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে হোয়াইট হাউজে ঢুকবে যা আর কোনো নতুন প্রেসিডেন্টকে মুখোমুখী হতে হয়নি।

ওবামার দুই মেয়াদকালে ভাইস-প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে ছিলেন বাইডেন।

ডেমোক্র্যাটদের সাবেক আরও দুই প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস-প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

বিল ক্লিনটন টুইটে লিখেছেন, আমেরিকা কথা বলেছে এবং গণতন্ত্রের জয় হয়েছে।

সাবেক ৪২তম ওই প্রেসিডেন্টে আশা প্রকাশ করেছেন যে, বাইডেন ও হ্যারিস সবার জন্য কাজ করবেন এবং সবাইকে একতাবদ্ধ রাখবেন।

এক বিবৃতিতে ৩৯তম প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার বলেন, তিনি ও তার স্ত্রী ডেমোক্র্যাটদের দক্ষ নির্বাচনী প্রচারণা এবং তারা দেশে যে ইতিবাচক পরিবর্তন এনেছে তা দেখে তিনি গর্বিত।

ক্লিনটন কিংবা কার্টার কেউই তাদের অভিনন্দন বার্তায় বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথা উল্লেখ করেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *