ভোলায় চিরকুট লিখে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা


ভোলা প্রতিনিধি :

ভোলার দৌলতখান উপজেলায় চিরকুট লিখে সম্পদ চন্দ্র দে নামে ২৬ বছর বয়সী এক কলেজছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

গত সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

নিহত সম্পদ চন্দ্র দে ওই এলাকার নিতাই চন্দ্র দে’র ছেলে। তিনি ভোলা সরকারি কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

সম্পদ চন্দ্র দে’র বোন মৌসুমি জানান, প্রতিদিনের মতো দুপুরে খাওয়া দাওয়া করে কক্ষে ঘুমাতে যান সম্পদ চন্দ্র। সন্ধ্যার দিকে আমরা তার রুমে একটি আওয়াজ শুনতে পাই। পরে রুমের ভেতর গিয়ে আড়ার সঙ্গে তাকে ঝুলতে দেখি। সেখান থেকে নামিয়ে দৌলতখান হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে দৌলতখান থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।

দৌলতখান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম মোস্তফা জানান, নিহতের রুমে আমরা একটি চিরকুট পাই। চিরকুটে লেখা রয়েছে ‘অন্তুর কোন দোষ ছিলো না। ভুল সব আমারই ছিলো। আমার আর ভালো লাগে না এই পৃথিবী। এক বিন্দুও বাঁচতে ইচ্ছে করে না আর এইখানে থাকতে। এই পৃথিবীতে সত্যিকারের ভালোবাসার কোনো মূল্য নেই। আমি চলে যাচ্ছি’।

পুলিশ কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা আরও জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি একটি প্রেমঘটিত বিষয়। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর আসল রহস্য জানা যাবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *