সাংবাদিক গৌতম হত্যার ১৫তম বার্ষিকী


ফরিদপুর প্রতিনিধি :

নির্ভীক সাংবাদিক সমকালের ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান গৌতম দাস হত্যাকাণ্ডের ১৫তম বার্ষিকী ১৭ নভেম্বর। দিনটি পালন উপলক্ষে ফরিদপুরের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে নানা কর্মসূচি নেয়া হয়েছে।

২০০৫ সালের ১৭ নভেম্বর ফরিদপুর শহরের নিলটুলী মুজিব সড়কে স্মরণী মার্কেটে অবস্থিত দৈনিক সমকাল ব্যুরো অফিসে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় গৌতম দাসকে। গৌতমকে হত্যা করার পর প্রতিবাদ মুখর হয়ে ওঠে সাংবাদিকসহ ফরিদপুরের সর্বস্তরের জনতা। পরবর্তীতে এ হত্যা মামলাটি ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থনান্তর করা হয়।

২০১৩ সালের ২৭ জুন ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন গৌতম দাস হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে নয়জন আসামির সবাইকেই যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়।

কর্মসূচি:

গৌতম দাস হত্যার ১৫তম বার্ষিকীতে ফরিদপুর শহর ও গৌতমের জন্মস্থান ভাঙ্গা উপজেলার চন্ডিদাসদী গ্রামে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন কর্মসূচি নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় চন্ডিদাসদী গ্রামে গৌতমের সমাধিতে সমকাল সুহৃদ সমাবেশ, প্রথম আলো বন্ধুসভাসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হবে।

এছাড়া তারেক মাসুদ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সকাল ৯টায় চন্ডিদাসদী গ্রামে গৌতমের বাড়ির চত্ত্বরে সাংস্কৃতিক ও আবৃত্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

গৌতম দাসের স্ত্রী দিপালী দাসের উদ্যোগে ফরিদপুর শহরের শ্রীঅঙ্গনে বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছে। পরে বান্ধব পল্লীস্থ নিজ বাড়িতে দুপুরে শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হবে। এছাড়া নিহত সাংবাদিক গৌতম দাসের ভাই-বোনদের উদ্যোগে ভাঙ্গার চন্ডিদাসদী গ্রামে পারিবারিকভাবে ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *