প্রেমের কারণেই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা


পটুয়াখালী প্রতিনিধি | প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১৯, ২০২০, ১৯:৫০ |

গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। তার নাম দেবজ্যোতি বসাক পার্থ (২২) ।

শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) সকালে পটুয়াখালী পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের মুন্সেফ পাড়া এলাকায় জহরলাল বসাকের নিজ বাসায় এ ঘটনা ঘটে। প্রেমজনিত কারণে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে ওই ছাত্রের পরিবারের ধারণা।

দেবজ্যোতি বসাক পার্থ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃ-বিদ্যা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি পটুয়াখালী পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের মুন্সেফ পাড়া এলাকার (পিটিআই কর্মকর্তা) জহরলাল বসাকের একমাত্র ছেলে।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মোবাইলে অন্য মেয়েদের সঙ্গে কথা বলা নিয়ে সমস্যা হয় দেবজ্যোতি বসাক পার্থর। সকাল ৭টার দিকে বাবা জহরলাল বসাক রুমে ঢুকে ফ্যানের হুকের সঙ্গে তাকে ঝুলতে দেখে চিৎকার চেঁচামেচি করলে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্বার করে পটুয়াখালী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দেখে মৃত ঘোষণা করেন।

দেবজ্যোতি বসাক পার্থর বন্ধু ফাহিম জানায়, বিকালে আমরা ক্রিকেট খেলেছি, রাতে ব্যাডমিন্টন। তখন এমন কিছু মনে হয়নি। অনেক রাত পর্যন্ত মেসেঞ্জারে কথা হয়েছে। সর্বশেষ কথা হয় ভোর ৫টার দিকে। তখনও কিছু বলেনি।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার মোর্শেদ বলেন, খবর পেয়ে হাসপাতাল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *