সাইবার হামলা: পম্পেওর দাবি রাশিয়া, ট্রাম্প বললেন চীন


আন্তর্জাতিক ডেস্ক |২০ ডিসেম্বর, ২০২০, ১০:২৮|

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে শক্তিশালী সাইবার হামলার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। তবে এরপরই বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এর জন্য চীনকে দায়ী করে বার্তা দিয়েছেন।

এক টুইটবার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘ভুয়া গণমাধ্যমগুলো সাম্প্রতিক সাইবার হামলাকে বড় করে তুলে ধরার ব্যাপক চেষ্টা করেছে। আমি এ ব্যাপারে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়েছি এবং পুরো পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। মূলধারার গণমাধ্যমগুলো যাকে দায়ী করে বক্তব্য দিচ্ছে সে হচ্ছে রাশিয়া। কারণ অর্থনৈতিক কারণে তারা যা নাম মুখে আনতে ভয় পায় সেটি হচ্ছে চীন।’

যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানগুলোতে বড় ধরনের সাইবার হামলা সম্পর্কে প্রথমদিকে বেশ নীরব ছিলেন ট্রাম্প। তবে শেষ পর্যন্ত এ বিষয়ে বার্তা দিলেন তিনি।

এর আগে প্রথম সারির মার্কনি সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, একটি বিদেশি সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় গত রবিবার যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানে সাইবার হামলা হয়েছে। এ সময় গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে হ্যাকাররা।

মার্কিন অর্থ এবং অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিভাগসহ দেশটির পরমাণু স্থাপনাগুলোতে গত কয়েক সপ্তাহে বহুবার সাইবার হামলা হয়েছে।

ওই হামলার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করে পম্পেও বলেছেন, ‘আমরা এটা পরিষ্কারভাবে বলতে পারি যে, এই ঘটনায় রাশিয়ার হাত রয়েছে।’ তবে মস্কো কিভাবে এই হামলা চালিয়েছে বা কেন তাদের বিরুদ্ধেই অভিযোগ তোলা হলো এ বিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য জানাননি তিনি।

অপরদিকে রাশিয়া এ ধরনের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। দেশটি জানিয়েছে, এ ধরনের হামলায় তাদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *